রজনী- বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় বাংলা উপন্যাস পিডিএফ - বাংলা বই এর pdf ডাউনলোড-Bangla Digital Boi Pdf

Latest

Wednesday, June 24, 2020

রজনী- বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় বাংলা উপন্যাস পিডিএফ


রজনী- বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় বাংলা উপন্যাস পিডিএফ
ডিজিটাল বইয়ের নাম- রজনী
লেখক- বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
বইয়ের ধরন- প্রেমের উপন্যাস
ফাইলের ধরন- পিডিএফ
এই বইতে মোট পৃষ্টা আছে- ৮০
ডিজিটাল বইয়ের সাইজ- ৩এমবি
প্রিন্ট খুব ভালো, জলছাপ মুক্ত

রজনী- বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

রজনী (১৮৮৫) বাংলা সাহিত্যের প্রথম ঔপন্যাসিক বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের (১৮৩৮-৯৪) একটি ব্যতিক্রমধর্মী উপন্যাস। বিষয়বস্তু, গঠনপ্রণালি, চরিত্রায়ণ ইত্যাদি নানা দিক থেকে বঙ্কিমচন্দ্রের উপন্যাসগুলোর মধ্যে শুধু নয়, সমগ্র বাংলা উপন্যাসে রজনীর স্থান অনন্য।

বিবাহিত স্ত্রী ও প্রেমিকার প্রতি আকর্ষণের টানাপোড়েনকে কেন্দ্র করে বঙ্কিমচন্দ্র লিখেছেন বিষবৃক্ষ ও কৃষ্ণকান্তের উইল। কিন্তু এ-দুটি উপন্যাসের মাঝে লেখা রজনীর গঠনশৈলী ও বিষয়বস্তু ভিন্ন। রজনী-শচীন্দ্রনাথ এবং লবঙ্গলতাঅমরনাথের প্রণয় কাহিনী গড়ে তুলেছে রজনীর গল্পের কাঠামো। এর একদিকে রয়েছে পরিবার অনুমোদিত প্রেম, অন্যদিকে আপাত অস্বীকৃতির নেপথ্যে নারীর অন্তরে প্রবহমান গভীর প্রেম। রজনী ও লবঙ্গলতা চরিত্রের মাধ্যমে বঙ্কিমচন্দ্র প্রেমের এই দুই রূপ ফুটিয়ে তুলেছেন। লক্ষ্য করলে দেখা যাবে, ১৮৭৩-৭৮ সময়ে বঙ্কিমচন্দ্র যে-সব উপন্যাস লিখছিলেন, তার কাহিনীতে স্থান পাচ্ছিল উনিশ শতকের দ্বিতীয়ার্ধে গড়ে ওঠা বাঙালি মধ্যবিত্ত সমাজের পারিবারিক ও সামাজিক সমস্যা। বিশেষ করে নতুন কালের নারীর মনের বিচিত্র রূপটি বঙ্কিমচন্দ্র তার বিভিন্ন উপন্যাসে চমৎকারভাবে তুলে ধরেছেন। রজনীর প্রধান ঘটনা শচীন্দ্রনাথের প্রতি অন্ধ সুন্দরী রজনীর প্রেম শচীন্দ্রনাথের
স্পর্শে যার উন্মেষ ঘটে। পরে বিয়ে হয় দু-জনের। এ উপন্যাসে আরও একটি প্রেমের ঘটনা স্থান পেয়েছে—লবঙ্গলতা ও অমরনাথের। লবঙ্গলতা বৃদ্ধ রামসদয় মিত্রের সুন্দরী দ্বিতীয় স্ত্রী। রামসদয়ের প্রথম পক্ষের পুত্র শচীন্দ্রনাথ। রামসদয়ের সঙ্গে বিয়ের আগে অমরনাথ ছিল কিশোরী লবঙ্গলতার রূপমুগ্ধ। লবঙ্গলতার সঙ্গে তার বিয়ের কথা হয়। হয়তো অমরনাথ সম্পর্কে লবঙ্গলতার হৃদয়ে সঞ্চারিত হয় অনুরাগের । কিন্তু অমরনাথ একরাতে লবঙ্গলতার ঘরে প্রবেশ করলে লোহার তপ্ত শলাকা দিয়ে তার পিঠে ‘চোর' লিখে দেয়া হয়। অমরনাথের পরিবর্তে লবঙ্গলতার বিয়ে হয় রামসদয়ের সঙ্গে। রজনীর মাধ্যমে অনেকদিন পর আবার দেখা হয় দু-জনের। কিন্তু ইতিমধ্যে কিশোরী থেকে তরুণীতে উত্তীর্ণ লবঙ্গলতা অনেকটাই বদলে গেছে। তার চরিত্রে পূর্বের ঝাঁজ নেই, প্রাখৰ্য্য নেই। প্রকাশ্যে সে অমরনাথের প্রেমকে অগ্রাহ্য করলেও অন্তর্লোকে ঠিকই তাকে স্থান দিয়েছে।

'রজনী' ১২৮১-৮২ বঙ্গাব্দের 'বঙ্গদর্শনে’ প্রথম প্রকাশিত হয়। গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয় এর দু-বছর পর ১২৮৪ (১৮৭৭ খ্রিষ্টাব্দে) সনে। বঙ্কিমচন্দ্রের জীবদ্দশায় রজনীর প্রকাশিত হয়েছিল আরও দুটি সংস্করণ। উপন্যাসটির বিজ্ঞাপনে বঙ্কিমচন্দ্র বলেছেন, লিটনের Last Days of Pompeii উপন্যাসের অন্ধ ফুলওয়ালী নিদিয়াকে অবলম্বন করে তিনি রজনী চরিত্রটি নির্মাণ করেছেন। আর চরিত্রের জবানিতে কাহিনী বর্ণনার রীতি | তিনি গ্রহণ করেছেন উইলকি কলিন্সের Woman in White নামক গ্রন্থ থেকে।
নিঃসন্দেহে বলা যায় যে, চরিত্রচিত্রণ ও গঠনশৈলীর দিক থেকে বাংলা উপন্যাসে রজনীর অভিনবত্ব অনস্বীকার্য। এবং বাংলা সাহিত্যের একটি সফল উপন্যাস।

উপরোক্ত বাংলা উপন্যাসটির পিডিএফ ফাইল সংগ্রহ করুন অথবা অনলাইনে পড়ুন
প্রিয় পাঠকগণ সংগ্রহ করে নিন অসাধারণ একটি প্রেমের উপন্যাস- 'রজনী- বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়' বাংলা বই পিডিএফ।

No comments:

Post a Comment