বঙ্কিমচন্দ্রের হাসির গল্প বাংলা বই পিডিএফ - বাংলা বই এর pdf ডাউনলোড-Bangla Digital Boi Pdf

Latest

Friday, July 5, 2019

বঙ্কিমচন্দ্রের হাসির গল্প বাংলা বই পিডিএফ


বঙ্কিমচন্দ্রের হাসির গল্প বাংলা বই পিডিএফ
ডিজিটাল বইয়ের নাম- বঙ্কিমচন্দ্রের হাসির গল্প
লেখক- বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
বইয়ের ধরন- সরস/মজাদার গল্প সংগ্রহ
ফাইলের ধরন- পিডিএফ
এই বইতে মোট পৃষ্টা আছে- ১২০
ডিজিটাল বইয়ের সাইজ- ৬এমবি
প্রিন্ট ভালো, জলছাপ মুক্ত

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় (২7 জুন 1838 - 8 এপ্রিল 1894) ছিলেন একজন বাঙালি লেখক, কবি এবং সাংবাদিক যিনি বাঙালি সাহিত্যের গদ্য গঠনকে আধুনিকায়ন করেছিলেন এবং বাংলায় সাহিত্য সম্রাট নামে পরিচিত।
ভারতের জাতীয় সংগীত বন্দে মাতরম যেটি স্বাধীনতার সংগ্রামের সময় দেশকে জাতির কাছে মাতৃ রূপে বন্দনা এবং ভারতীয় জাতিকে স্বাধীনতা প্রাপ্তির জন্য অনুপ্রাণিত করেছিলেন, এই সংগীতটি তাঁর উপন্যাস আনন্দমঠ থেকে নেওয়া হয়েছিল। বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়কে বাংলার সাহিত্যিক পুনর্জাগরণের পাশাপাশি বিস্তৃত ভারতীয় উপমহাদেশের প্রধান ব্যাক্তিত্ব হিসাবেও গণ্য করা হয়।
আজকের বাংলা উপন্যাস ও বাংলা গদ্য সাহিত্যের যে উৎকর্ষতা আমরা পেয়েছি সেখানে বঙ্কিমচন্দ্রের অবদান বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। তাঁর পূর্বে বাংলা সাহিত্য বলতে ছিল কতিপয় সংস্কৃত নাটক ও গল্প এবং কিছু সংখ্যক ফারসি ও আরবি গল্পের বাংলা অনুবাদ এবং সেগুলি ছিল প্রধানত শিক্ষামূলক ও নীতিমূলক। তিনি প্রথম বাংলা গদ্যের উৎকর্ষ সাধনে জন্য গল্পের চরিত্রচিত্রণ, শিল্পসৃজন, বর্ণনা, নান্দনিকতা যুক্ত করেন এবং ভারত জুড়ে লেখকদের অনুপ্রেরণা প্রদান করেছিলেন। যার প্রত্যক্ষ প্রভাব আমরা দেখতে পাই বিশ শতকের বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে।
আজ আপনাদের জন্য তাঁর রসাত্মক রচনা সংকলন- বঙ্কিমচন্দ্রের হাসির গল্প এই বইটির পিডিএফ নিয়ে হাজির হয়েছি। এই বইতে যে গল্পগুলি রয়েছে, তা হল-
মুচীরাম গুড়
পাঠশালার পন্ডিত মহাশয়
শিক্ষার বাহাদুরী
সুবৰ্ণ গোলক
ব্যাঘ্রাচার্য বৃহলাগুল
আফিংখোর কমলাকান্তের নানাকীর্তি
১লা শ্রাবণ নববর্ষ
মাধবীনাথের গোয়েন্দাগিরি
সন্নাসী ও সাহেব
গোয়েন্দার বিপদ


বঙ্কিমচন্দ্রের হাসির গল্প

উপরোক্ত বাংলা বইটির পিডিএফ ফাইল সংগ্রহ করুন অথবা অনলাইনে পড়ুন
প্রিয় পাঠকগণ, এই পোষ্ট হইতে আপনারা সাহিত্য সম্রাট বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের লেখা সরস/মজাদার গল্প সংগ্রহ- 'বঙ্কিমচন্দ্রের হাসির গল্প' বই-এর পিডিএফ সংগ্রহ করিতে পারিবেন।

No comments:

Post a Comment