সরস প্যাসেঞ্জার- তারাপদ রায় রম্যরচনার সংকলন পিডিএফ - বাংলা বই এর pdf ডাউনলোড-Bangla Digital Boi Pdf

Latest

Monday, November 11, 2019

সরস প্যাসেঞ্জার- তারাপদ রায় রম্যরচনার সংকলন পিডিএফ


সরস প্যাসেঞ্জার- তারাপদ রায় রম্যরচনার সংকলন পিডিএফ ফাইল
ডিজিটাল বইয়ের নাম- সরস প্যাসেঞ্জার
লেখক- তারাপদ রায়
বইয়ের ধরন- সরস/মজাদার গল্প
ফাইলের ধরন- পিডিএফ
এই বইতে মোট পৃষ্টা আছে- ১৪১
ডিজিটাল বইয়ের সাইজ- ১০এমবি
প্রিন্ট খুব ভালো, জলছাপ মুক্ত

কবি তারাপদ রায় একজন বিশিষ্ট কবি ও রম্যরচনাকার ছিলেন। এই মহান লেখক ‘নক্ষত্র রায়’ এবং ‘গ্রন্থকিট’ ছদ্মনামে লিখতেন। তিনি ১৯১৩ সালের ১৭ নভেম্বর বাংলাদেশের টাঙ্গাইল জেলায় ভুমিষ্ট হয়েছিলেন।
বাংলাদেশের বিন্দুবাসিনী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে তিনি ম্যাট্রিক পাস করেছেন। এর পরে, ১৯৫১ সালে তিনি কলেজে পড়তে কলকাতায় আসেন এবং সেন্টাল কলকাতা কলেজে (বর্তমানে মাওলানা আজাদ কলেজ) অর্থনীতিতে পড়াশোনা করেন। একটি সময় তিনি উত্তর চব্বিশ পরগনার হাবড়ার একটি স্কুলে শিক্ষকতা করেছেন।
এই লেখক এরপর ‘পূর্বমেঘ’ও  'কয়েকজন' নামক পত্রিকাগুলি সম্পাদনা করেছিলেন। তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘তোমার প্রতিমা’ ১৯৫৮ সালে প্রকাশিত হয়েছিল। এছাড়া তাঁর অন্যান্য কাব্য-গ্রন্থগুলি হল- 'কোথায় যাচ্ছেন তারাপদ বাবু', 'নীল দিগন্ত এখন ম্যজিক', 'দারিদ্ররেখা', 'ভালোবাসার কবিতা', ভালো আছো গরিব মানুষ', 'কবি ও পরশিল্পী' প্রভৃতি।

**আপনারা এই লেখকের আরো বই সংগ্রহ করতে পারবেন- রম্যরচনা ৩৬৫- তারাপদ রায়

তাঁর অন্যান্য গ্রন্থগুলি হল- 'কান্ডজ্ঞান', জ্ঞানগর্ম', ডোডো তাতাই পালা কাহিনী', 'জলভাত', 'রস ও রমণী', 'বালিশ', 'ধারদেনা', 'বানরেরা মানুষ হচ্ছে'  ঈত্যাদি। কৌতুক এবং ব্যঙ্গাত্মক মিশ্রণ দ্বারা লেখক বাংলা কবিতায় একটি অনন্য ধারা উদ্ভাবন করেছেন। তিনি বাংলা সাহিত্যে ব্যঙ্গাত্মক রম্যরচনার স্রষ্টা।
প্রিয় পাঠকগণ, এখন এই পোষ্টে তারাপদ রায়ের রচিত রম্যরচনার সংকলন বই- 'সরস প্যাসেঞ্জার' পিডিএফ শেয়ার করা হল। বইটিতে মোট ৭৩টি রম্যরচনার সংকলিত হয়েছে।

সরস প্যাসেঞ্জার- তারাপদ রায়

 উপরোক্ত বাংলা বইটির পিডিএফ ফাইল সংগ্রহ করুন অথবা অনলাইনে পড়ুন
**পিডিএফ পড়ার পর যদি বইটি ভালো লাগে তবে অবশ্যই হার্ডকপি সংগ্রহ করবেন- সরস প্যাসেঞ্জার হার্ডকপি

প্রিয় পাঠকগণ, আপনারা এই পোষ্ট হইতে অসাধারণ একটি রম্যরচনার সংকলন বই- 'সরস প্যাসেঞ্জার- তারাপদ রায়'-এর পিডিএফ সংগ্রহ করিতে পারিবেন।

No comments:

Post a Comment